সংস্করণ: ২.০১

স্বত্ত্ব ২০১৪ - ২০১৭ কালার টকিঙ লিমিটেড

iftar-easy-go.jpg

স্বাস্থ্য সচেতনতা রোজায় ভাল থাকার কিছু সহজ উপায়

সেহেরীতে প্রয়োজনের বেশী পানি পান করবেন না, তাতে গ্যাস্ট্রিক এর সমস্যা বেশী পরিমাণে দেখা দিতে পারে।

রোজার সময় আমাদের  মধ্যে বেশিরভাগ মানুষের ভাজা পোড়া ইফতারই পছন্দ। কিন্তু শারীরিক সমস্যার কারনে মনের মত করে ইফতারই করা হয় না। অথচ সামান্য কিছু উপায় অবলম্বন করলেই আমরা আমাদের পছন্দের ইফতারই খেতে পারি।

চলুন জেনে নেই কি সেই উপায়:

  • প্রতিদিনের ইফতারিতে প্রথমে ঠাণ্ডা কিছু খেয়ে রোজা খুলুন।
  • ঠাণ্ডা বলতে চিঁড়ার পানি, চিঁড়ার সরবত, বাসায় বানানো ফলের ফ্রেস জুস ইত্যাদি।
  • টক বা দুধের তৈরী খাবার বা সরবত শুরুতেই পান করবেন না।
  • পোড়া তেল ব্যবহার করবেন না।
  • বাসি খাবার পরিত্যাগ করুন।
  • বাইরের কেনা ও অস্বাস্থ্যকর ইফতার একবারেই খাবেন না।
  • অতিরিক্ত পেট ভরে কখনও খাবার খাবেন না।
  • সম্ভব হলে বেলের সরবত ও ইসুবগুলের ভুষি খেতে পারেন।
  • বাড়তি তেল ও মসলা জাতীয় খাবার খাবেন না।
  • মাংস কম খেয়ে মাছ বেশি করে খান।
  • ভাজি বা ভুনা খাবার না খেয়ে ঝোলের তরকারি খান।
  • আগের দিনের ইফতারি ফ্রিজে রেখে পরের দিন না খেয়ে অল্প করে প্রতিদিন ইফতারি বানানোর চেষ্টা করুন।
  • বেশি করে পানি পান করুন।
  • ইফতারিতে ফলের পরিমান বেশী রাখুন।
  • সেহেরীতে প্রয়োজনের বেশী পানি পান করবেন না, তাতে গ্যাস্ট্রিক এর সমস্যা বেশী পরিমাণে দেখা দিতে পারে।

তাই এই রমজানে নিজের প্রয়োজন অনুযায়ী খাদ্য অভ্যাস গড়ে তুলুন, সুস্থ্য থাকুন।


এখানে প্রকাশিত প্রতিটি লেখার স্বত্ত্ব ও দায় লেখক কর্তৃক সংরক্ষিত। আমাদের সম্পাদনা পরিষদ প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে এখানে যেন নির্ভুল, মৌলিক এবং গ্রহণযোগ্য বিষয়াদি প্রকাশিত হয়। তারপরও সার্বিক চর্চার উন্নয়নে আপনাদের সহযোগীতা একান্ত কাম্য। যদি কোনো নকল লেখা দেখে থাকেন অথবা কোনো বিষয় আপনার কাছে অগ্রহণযোগ্য মনে হয়ে থাকে, অনুগ্রহ করে আমাদের কাছে বিস্তারিত লিখুন।

health, ramadan, iftar, sahri, Food, tips