সংস্করণ: ২.০১

স্বত্ত্ব ২০১৪ - ২০১৭ কালার টকিঙ লিমিটেড

mother-care.jpg

আমার মা

ঠিক সূর্যের মতই তেজস্বী এক অবিনশ্বর সত্ত্বা আমার মা। আব্বার মৃত্যুর পর আমাদের কাছে তার একটাই পরিচয় ছিল তিনি আমাদের মা। অথচ তখন আমার মা ছিল মাত্র ৩৪ বছরের একজন তরুণী।

আজ মা দিবস। ভাবছি আমার মাকে কি দিব। কিছুই খুঁজে পাইনা। কারন আমার স্নেহময়ি মা শুধু আমাদের দিয়েই গেছেন, বিনিময়ে চাননি কিছুই, নেননি কিছুই।

এখন অনেক মেয়েদেরই বিয়ে হয় ৩১/৩২ বছর বয়সে অথচ আমার মা মাত্র ৩৪ বছর বয়সে স্বামীহারা হন আমাদের ৫ ভাইবোন সঙ্গে নিয়ে। সেই থেকে আমার চির তরুন মমতাময়ী মা আমাদের পরম যত্নে লালন পালন করেই চলেছেন আজও। আলো দিয়ে চলছেন প্রদীপের মত আমাদের জীবনে। প্রদিপ বা মোমের সঙ্গে তুলনা করা চলেনা আমার মায়ের। আমার অফুরন্ত জীবনী শক্তির অধিকারি মাকে একমাত্র তেজদিপ্ত সূর্যের সাথে তুলনা করা চলে যার আলোয় আলোকিত হয় সারা পৃথিবী। 

ঠিক সূর্যের মতই তেজস্বী এক অবিনশ্বর সত্ত্বা আমার মা। আব্বার মৃত্যুর পর আমাদের কাছে তার একটাই পরিচয় ছিল তিনি আমাদের মা। অথচ তখন আমার মা ছিল মাত্র ৩৪ বছরের একজন তরুণী। এখন ভাবি তার ও একটা মন ছিল, ছিল কত চাওয়া- পাওয়া, স্বপ্ন আশা-আকাংখা, কত না বলা কথা, এসব তিনি কাকে বলতেন? ভাবতেই মন এক অব্যক্ত বেদনায় ভারাক্রান্ত হয়ে যায়। দুচোখের পাতা মনের অজান্তেই ভিজে আসে। 

তখন থেকেই হয়তবা তিনি গভীর মিতালি গড়ে তুলেছেন সৃষ্টিকর্তার সাথে। ভোর ৩.৩০ উঠে তাহাজ্জত নামাজ পড়ে বিভিন্ন দুয়া তাজবিহ পড়তে পড়তে ফজরের আজান পরে। তিনি নামাজ পরে সন্তানদের ফোন দেন ঘুম থেকে উঠে নামাজ পরার জন্য। যদি কোন সন্তান তার আখিরাতে আমল নিয়ে না যেতে পারে সেই চিন্তায় সর্বদা চিন্তিত থাকে আল্লাহর ভয়ে ভীত তাঁর মাতৃমন। এভাবেই দিনের সূচনা হয় তার। তারপর একে একে এশরাক, চাশত, সালাতুত তাজবিহ, যোহর, আসর, মাগরিব, ইশা পড়ে তার দিন শেষ হয়। তার এখন একমাত্র চাওয়া তার সন্তানরা যেন নিয়মিত নামাজ পড়ে,সৎ পথে চলে। পৃথিবীতে যেমন আগলে রেখেছেন তেমনি আখিরাতেও আগলে রাখতে চান তার সন্তানদের।

আল্লাহর অশেষ রহমতে তিনি এখন ও তার ছেলেমেয়েদের চেয়ে ও বেশী কর্মক্ষম এবং জীবনী শক্তির অধিকারী। আমাদের ৫ ভাই বোনের পর এখন আবার তাদের সন্তানদের লালন পালন করছেন। আমার ৪ মাস বয়সী শিশুটিকে আমার মায়ের কাছে রেখে পরম নিশ্চিন্তে আমি আমার স্কুলে চলে যাই। স্কুলে যতক্ষণ থাকি একবার ফোন দিয়েও খোঁজ নেয়ার প্রয়োজন মনে করিনা কারন আমি জানি আমার স্নেহময়ি মা পরম যত্নে আগলে রেখেছেন আমার সন্তানকে। শুধু আমার সন্তানকেই না আমাকে তিনি ঠিক ছোট্ট শিশুটির মতই যত্ন নেন এখনও। 

আল্লাহ পাকের কাছে অশেষ শুকরিয়া তিনি প্রতিটি মানুষ কে মা এর মত একটি শ্রেষ্ঠ উপহার দিয়েছেন। ভাবতেই পারিনা মা' আমাদের ছেড়ে কোনদিন চলে যাবেন। কারন আমার সন্তানদের জন্য আমি যেমন আল্লাহর অশেষ নেয়ামত তেমনি আমার জন্য আমার মা আল্লাহর অশেষ নেয়ামত। 'যেদিন তুমি থাকবেনা মা সেদিন আমার হবে কি, সুখে থাকি দুখে থাকি কাহার আসবে যাবে কি'। তাই আল্লাহকে বলি আমার মায়ের মৃত্যু যেন আমাকে কখনো দেখতে না হয়। মা, তুমি আমার আগে যেয়ো নাকো চলে। 

খুব কষ্ট হয় তাদের জন্য যারা মায়ের এই অসীম ভালবাসা থেকে বঞ্ছিত। যাদের মা নেই তাদের জন্য এই মা দিবসে রইল আমার গভীর সমবেদনা। যাদের মা আছে তারা যেন এই মূল্যবান সম্পদের রক্ষণাবেক্ষণ করে সঠিকভাবে। আজ মা দিবসে আমার মহীয়সী মাকে আমার এই লেখা উপহার দিলাম। পৃথিবীর সকল মাকে আমার শুভেচ্ছা।


এখানে প্রকাশিত প্রতিটি লেখার স্বত্ত্ব ও দায় লেখক কর্তৃক সংরক্ষিত। আমাদের সম্পাদনা পরিষদ প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে এখানে যেন নির্ভুল, মৌলিক এবং গ্রহণযোগ্য বিষয়াদি প্রকাশিত হয়। তারপরও সার্বিক চর্চার উন্নয়নে আপনাদের সহযোগীতা একান্ত কাম্য। যদি কোনো নকল লেখা দেখে থাকেন অথবা কোনো বিষয় আপনার কাছে অগ্রহণযোগ্য মনে হয়ে থাকে, অনুগ্রহ করে আমাদের কাছে বিস্তারিত লিখুন।

prayer, belief, religious, Love, protect, caring, mother